রামপুরায় স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

রাজধানীর রামপুরা থানা এলাকায় স্বামীর মারধরে পারভিন আক্তার (৪৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। রবিবার (৩০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। প্রতিবেশী মমিনা খাতুন বলেন, ‘পারভিন ও তার স্বামী মনির হোসেনসহ এক মেয়েকে নিয়ে রামপুরা টিভি সেন্টারের পাশে বাসার দ্বিতীয় তলায় ভাড়া থাকতো। তার স্বামী নেশাগ্রস্ত হওয়ায় তিনি কোনও কাজ করতো না। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব-কলহ লেগেই থাকতো। এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার ভোরে মনির নেশা করার জন্য পারভীনের কাছে টাকা চায়। পারভীন টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে খুব মারধর করেন মনির। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। এর পর সকাল ৯টার দিকে আমিসহ কয়েকজন প্রতিবেশী মিলে ওই বাসায় গেলে পারভীনকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখতে পাই। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিলে আসলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’ নিহতের ভাই সাইফ উদ্দিন টিটু জানান, বিয়ের পর থেকে পারভীন ও তার স্বামীসহ এক মেয়েকে নিয়ে রামপুরা টিভি সেন্টারের বিপরীত এলাকার একটি বাসায় ভাড়া থাকতো। তাদের বাড়ি ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায়। তার বাবা নাম আব্দুর রব। ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (এসআই) বাচ্চু মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে ও সংশ্লিষ্ট থানায় বিষয়টি জানানো হয়েছে।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *