বৈশ্বিক উষ্ণতার সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বড় ধরনের হুমকির মুখে দক্ষিণ এশিয়া। তীব্র দাবদাহ ও আদ্রতার কারণে মৃত্যু ঝুঁকিতে রয়েছে লাখো মানুষ। কার্বন নিঃসরণ নিয়ন্ত্রণ হলেও, একবিংশ শতাব্দির মধ্যে অঞ্চলটির অবস্থা চরম আকার ধারণ করবে বলেও সতর্ক করেছেন বিজ্ঞানীরা। মাত্রাতিরিক্ত কার্বন নিঃসরণে, দিন দিন বাড়ছে বৈশ্বিক উষ্ণতা। নেচার ক্লাইমেট চেঞ্জের গবেষণা বলছে, এ শতকের শেষ দিকে বৈশ্বিক উষ্ণতা দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত বাড়তে পারে। তবে আগামী ১৫ বছর বর্তমান হারে কার্বন নিঃসরণ হলে, তা ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত বাড়তে পারে। বৈশ্বিক উষ্ণতার সবচেয়ে বড় প্রভাব পড়বে এশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে। বিশেষ করে ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশ রয়েছে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এ মুহূর্তে কার্বন নিঃসরণ একেবারে বন্ধ হলেও, শতাব্দির শেষ নাগাদ এসব অঞ্চলে প্রাণের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখা কঠিন হয়ে পড়বে। উষ্ণতা নিয়ন্ত্রণে এখনো কোনো সমাধানে পৌঁছাতে পারেননি বিশ্ব নেতারা। প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র নাম প্রত্যাহারের ঘোষণা, এ চুক্তিকে করেছে বাধাগ্রস্ত। তবে কার্বন নিঃসরণের দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়াই, চুক্তি কার্যকরের ঘোষণা দিয়েছে বিশ্বের ২৭টি অর্থনৈতিক শক্তিধর দেশ।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *