ঢামেকে একই ছাদের নিচে মিলবে সব চিকিৎসা

ঢাকা মেডিকেল কলেজ  হাসপাতালে বদলে যাচ্ছে চিকিৎসা সেবা। একই ছাদের নিচে মিলবে সব ধরনের চিকিৎসা। ‘শতভাগ ওষুধ ও চিকিৎসা’ সেবা এই পরিকল্পনা মাথায় রেখে কাজ করছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সভাকক্ষে বাংলাদেশ মেডিকেল রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় ঢামেকের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মিজানুর রহমান এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘ঢাকা মেডিকেলের চিকিৎসা সেবা অনেক দূর এগিয়ে গেছে। আগে জরুরি অস্ত্রোপচার করা হতো একবেলা, এখন ২৪ ঘণ্টাই জরুরি অপারেশন করা হচ্ছে। আগের চেয়ে ওটি সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। এখন ওটি সংখ্যা ৩৩টি। হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা ২ হাজার ৬০০ থাকলেও রোগী ভর্তি আছে দ্বিগুণ। অতিরিক্ত রোগীর জন্য জনবল বেশি নেই। কিন্তু কোনোমতে যোগান দিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা চালিয়ে যাচ্ছি।’ পরিচালক আরো বলেন, ‘কিছু ত্রুটি আমাদের আছে। আমার কানেও বেশ কিছু অভিযোগ আসে। তবে প্রতিটি রোগী যাতে শতভাগ চিকিৎসা সেবা পায় সে লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আশা করি আমাদের এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হবে।’ তিনি বলেন, ‘অনেক পুরাতন এমআরআই মেশিন, সিটি স্ক্যান মেশিন বাতিল করে নতুন ২টি সিটি স্ক্যান, ১টি এমআরআই ও এর পাশাপাশি ৫টি ডায়ালাইসিস মেশিনে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে। আরও একটি নতুন সিটি স্ক্যান মেশিন আনার পরিকল্পনা চলছে। লোকবল কম থাকার কারণে অনেক স্পেশাল বয় মেডিকেলে কাজ করেন। যেমন ট্রলি ম্যান, ওয়ার্ডেও কিছু লোক আছে এরা রোগীকে সেবা দিয়ে টাকা নেয়। এজন্য আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে তাদের কাজ করানো যায় কিনা সে পরিকল্পনা করা হচ্ছে। সবশেষে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেছেন তিনি। এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ মেডিকেল রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমআরএ) সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন বাবু ও সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হাকিমসহ সংগঠনের নেতারা। মতবিনিময় সভায় ঢামেক পরিচালক ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সহকারি পরিচালক ডা. হাবিবুর রহমান, বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কামাল পাটুয়ারী সাধারণ সম্পাদক মো. জুয়েলসহ্ আরও অনেকে।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *