আফগানিস্তানে তালেবান হামলায় ২৬ সেনার মৃত্যু

আফগানিস্তানের কান্দাহারের খাকরেজ জেলার কারজালি এলাকায় সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালিয়ে ২৬ সেনাকে মেরে ফেলেছে তালেবান জঙ্গিরা। ভয়াবহ এ হামলায় আরো অন্তত ১৩ জন সেনা গুরুতর আহত হয়েছে। আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র দৌলত ওয়াজিরি জানিয়েছেন, সেনাদের পাল্টা গুলিতে মৃত্যু হয়েছে অনেক জঙ্গিরও। কারজালির বাসিন্দারা জানান, বুধবার রাতে অন্তত তিরিশটি গাড়িতে করে শ’খানেক জঙ্গি সেনা ঘাঁটিতে আক্রমণ চালায়। প্রথমেই গোটা শিবির ঘিরে ফেলে তারা। তার পরই স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে ছুটে আসে ঝাঁকে ঝাঁকে গুলি। একটি আউটপোস্ট দখল করে সেনাদের অনেক অস্ত্র লুঠ করে জঙ্গিরা। পরে সেই আউটপোস্ট জঙ্গিমুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে সেনারা। দেশটির সরকারি সূত্রের খবরে বলা হয়েছে, গুলির লড়াইয়ে মৃত্যু হয়েছে আশিরও বেশি জঙ্গির। হামলার পর পরই গোটা ঘটনার দায় স্বীকার করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে বিবৃতি দেয় তালেবান। ২০১৪ সালে বারাক ওবামার আমলেই আফগানিস্তান থেকে সেনা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আমেরিকা। কিন্তু তার পর থেকে নিরাপত্তার অবনতি ঘটতে থাকে। সম্প্রতি আফগানিস্তানে আরও চার হাজার মার্কিন সেনা পাঠানোর কথা ঘোষণা করে পেন্টাগন। পরিসংখ্যান বলছে, তার পর থেকে জঙ্গি হামলা বেড়েছে। নিশানা করা হচ্ছে সেনা ও নিরাপত্তা বাহিনীকে। চলতি বছরেই জঙ্গি হামলায় আফগানিস্তানে প্রাণ হারিয়েছেন দু’হাজারের কাছাকাছি মানুষ। যাদের একটা বড় অংশ সেনা ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য। এর মাত্র দু’দিন আগেই কাবুলে সরকারি কর্মকর্তাদের নিশানা করে আত্মঘাতী তালেবান জঙ্গিরা। তাদের বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় ৩৫ জনের। এর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই ফের এই আঘাত। আল-জাজিরা।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *